SHYAM SUNDER SIKDER

Secretary

ICTD

তথ্যওযোগাযোগপ্রযুক্তিবিভাগেনতুনসচিবজনাবশ্যামসুন্দরসিকদার১৯৮৪ব্যাচেরপ্রশাসনক্যাডারেরকর্মকর্তা।এরআগেতিনিবাংলাদেশক্ষুদ্রওকুটিরশিল্পসংস্থারচেয়ারম্যানহিসেবেদায়িত্বপালনকরেছেন।তাঁরসংক্ষিপ্তজীবনওকর্মদেওয়াহলো।

শ্যামসুন্দরসিকদার১৯৬০সালেতৎকালীনবৃহত্তরফরিদপুরজেলারপূব-মাদারীপুরেরনড়িয়াথানারলোনসিংগ্রামেজন্মগ্রহণকরেন।বর্তমানেএটিশরিয়তপুরজেলারঅন্তর্গত।তারপিতারনাম-গিরেদ্রমোহনসিকদার, মাতারনাম-কৃষ্ণদাসীসিকদার।৭ভাইবোনদেরমধ্যেতিনি৩য়।মাটি-জল, খাল-নদীএবংশস্য-শ্যামলপ্রকৃতিদেখেদেখেগ্রামীণপরিবেশেতাঁরকৈশোরকেটেছে।

শিক্ষাজীবন :  নিজগ্রামদক্ষিণলোনসিংপ্রাথমিকবিদ্যালয়েতাঁরপ্রথমপাঠশুরু।পঞ্চমশ্রেণীপর্যন্তএইস্কুলেঅধ্যায়ন।অতঃপরনড়িয়াবিহারীলালহাইস্কুলেমাধ্যমিকশিক্ষাগ্রহণকরেপরবর্তীসময়েফেণীমডেলহাইস্কুলেভর্তিহন।১৯৭৫সালেঐস্কুলথেকেবিজ্ঞানবিভাগেএসএসসিপাশকরেফেণীকলেজেভর্তিহনএবং১৯৭৭সালেএকইকলেজথেকেবিজ্ঞানবিভাগেএইচএসসিএবং১৯৭৯সালেবিএসসিডিগ্রিলাভকরেন।এরপরচট্টগ্রামবিশ্ববিদ্যালয়েপরিসংখ্যানবিভাগেভর্তিহনএবং১৯৮১সালেএমএসসিডিগ্রিঅর্জনকরেন।তিনি২০০৮সালেনর্দানবিশ্ববিদ্যালয়থেকেপ্রথমশ্রেণীতেএমবিএডিগ্রিপ্রাপ্তহন।

কর্মজীবন : মূলততারকর্মজীবনশুরুহয়শিক্ষাকতাদিয়ে।এরপর১৯৮৪সালেবাংলাদেশব্যাংকেকর্মকর্তাহিসেবেযোগদান।তিনি১৯৮৪সালেবিসিএসপরীক্ষায়উত্তীর্ণহয়ে১৯৮৬সালেপ্রশাসনক্যাডারেযোগদানকরেমাঠপর্যায়েএবংসরকারেরগুরূত্বপূর্ণবিভিন্নমন্ত্রণালয়েবিভিন্নপদেদায়িত্বপালনকরেছেন।২০০৫সালেউপ-সচিবপদেপদোন্নতিপেয়েবাংলাদেশস্থলবন্দরকর্তৃপক্ষেরসচিবহন।এরপরসাভারস্থবিপিএটিসিতেপরিচালকহিসেবেযোগদানকরেন।২০০৯সালেযুগ্ম-সচিবপদেপদোন্নতিপেয়েসংস্থাপনমন্ত্রণালয়েরঅধীনেএবং২০১০সালেসংস্কৃতিবিষয়কমন্ত্রণালয়েযোগদানকরেন।সেখানেদায়িত্বপালনঅবস্থায়২০১২সালেঅতিরিক্তসচিবহিসেবেপদোন্নতিলাভকরেনএবংকিছুদিনপরগৃহায়ণওগণপূর্তমন্ত্রণালয়েদায়িত্বপালনকরেন।২০১৩সালেতিনিবিসিকেরচেয়ারম্যানহিসেবেযোগদানকরেন।

সাহিত্যকর্মতারসাহিত্য-জীবনশুরুহয়ছাত্রজীবনেনাটককবিতালিখেএবংঅভিনয়েরমাধ্যমে।তিনিনিজগ্রামশরিয়তপুরেরলোনসিং-এ ‘মাতৃস্মৃতিসংঘ’ নামেএকটিসাংস্কৃতিকসংগঠনপ্রতিষ্ঠায়অগ্রণীভূমিকাপালনকরেন।তিনিফেণীর ‘সংলাপনাট্যগোষ্ঠীর’ প্রতিষ্ঠাতাসদস্যহিসেবেদায়িত্বপালনকরেন।ঐসময়তিনিফেণীর ‘বাংলাদেশশিল্পকলাএকাডেমীর’ সদস্যছিলেন।১৯৮৪-৮৫সালেতিনিযখনবাংলাদেশব্যাংকেকর্মরতছিলেনতখনএইব্যাংকে ‘অধিকোষসাহিত্যঅঙ্গন’ নামকএকটিসাহিত্যবিষয়কপ্রতিষ্ঠানগড়েতোলেন।

১৯৭৬-৭৭সালে ‘ফলাফলশূন্য’ ও ‘মাটিরমন্দির’ নামকদুটিনাটকরচনাকরেনএবংতিনিএইনাটকদুটিতেঅভিনয়এবংনির্দেশকেরভূমিকাওপালনকরেন।ফেণীথেকেপ্রকাশিত ‘সাপ্তাহিকপথ’ পত্রিকায়তারজীবনেরপ্রথমকবিতাপ্রকাশিতহলেওমূলত১৯৮৪সালথেকেতারনিয়মিতলেখাদেশেরপ্রখ্যাতপত্র-পত্রিকায়ছাপাহতেথাকে।দৈনিকসংবাদএর ‘খেলাঘর’, বাংলারবাণী, ইত্তেফাকএবংসাপ্তাহিকপ্রতিরোধসহবেশকিছুপত্র-পত্রিকায়তিনিধারাবাহিকভাবেলিখেন।বাংলাদেশচলচ্চিত্রওতথ্যঅধিদপ্তরথেকেপ্রকাশিত ‘নবারুণ’ ও ‘সচিত্রবাংলাদেশ’ পত্রিকায়তারবেশকিছুলেখাছাপাহয়।তিনিএকসময়দৈনিক ‘মাথাভাঙ্গা’(চুয়াডাঙ্গা) এবংদৈনিকগিরিদর্পণ (রাংগামাটি) পত্রিকায়নিয়মিতলিখতেন।তিনিদৈনিকইত্তেফাক,যুগান্তরএবংবাংলাদেশপ্রতিদিনপত্রিকায়মাঝেমধ্যেলিখছেন। ‘দৈনিকআমারকাগজ’ পত্রিকায়তারধারাবাহিককবিতাদীর্ঘদিনপ্রকাশিতহয়েছে।

তারপ্রথমকাব্যগ্রন্থ জলেজলেসমুদ্র ২০১২সালেপ্রকাশিতহয়।একইবছরপ্রকাশিতহয় অনাহারীঅতিথিকাক (২০১২), অতঃপরতৃতীয়কাব্যগ্রন্থ অন্তরেঅন্তরটানেনিরন্তর (২০১৩) এবংপ্রবন্ধেরবইমামাটিমানুষসমকালীনপ্রসঙ্গ (২০১৩) প্রকাশিতহয়েছে।২০১৪সালেরবইমেলাউপলক্ষ্যেতারপ্রকাশিতগ্রন্থহচ্ছে : ভ্রমণকাহিনী-জাপান: ভূমিকম্পেরসঙ্গেসহাবস্থান, মুক্তিযুদ্ধবিষয়কগল্প-ইতিহাস-একাত্তরেরজীবনযুদ্ধ, গল্পগ্রন্থ ভালোবাসারনির্বাসন কবিতাগ্রন্থ হৃদয়েহৃদয়েযুদ্ধ এবংছোটদেরছড়ারবই ইচ্ছেডানা।এছাড়াতিনিপার্বত্যজেলারউপর২০০৪সালে রাংগামাটি:  বৈচিত্রেরঐক্যতানবইয়েরসহযোগীসম্পাদকওলেখকছিলেন।সম্প্রতিপ্রকাশিতহয়েছেবিসিকেরঅতীত, বর্তমানওভবিষৎ (একটিসমীক্ষা)।

মূলতশ্যামসুন্দরসিকদারএকজনবহুমাত্রিকলেখকওগবেষক।তারলেখায়সমকালীনজীবন, সমাজব্যবস্থা, স্থানীয়ইতিহাস-ঐতিহ্যএবংআমাদেরমহানমুক্তিযুদ্ধেরআকরঅসাধারণভাবেফুটেওঠেছে।কবিতা, গল্প, উপন্যাস, ভ্রমণকাহিনীএবংপ্রবন্ধইত্যাদিসকলমাধ্যমেতারঅবাধবিচরণঅবারিতএবংসাহিত্যবিচারেতাসমুজ্জ্বলওবটে।

ভ্রমণ : ভারত, থাইল্যান্ড, চীন, জাপান, মালয়েশিয়া, শ্রীলংকা, সুইজারল্যান্ড, রাশিয়া, জার্মানি, সিঙ্গাপুর, মালদ্বীপ, ভিয়েতনাম।

পারিবারিকঅবস্থা : তিনিএকপুত্রওএককণ্যাসন্তানেরজনক।পুত্রঅরিজিৎসিকদার, কণ্যাঅন্নেষাসিকদার।স্ত্রীসুপ্রেমাসিকদার।